সাভারে আমিনবাজারের সালেপুর ব্রীজে ফাটল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের আমিনবাজার এলাকার সালেহপুর সেতুর একটি অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। এতে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে প্রকৌশলী ও পরামর্শকগণ দুর্ঘটনা রোধে সেতুটির ঝুঁকিপূর্ণ লেনটি বন্ধ রেখে অপর লেনটি চালু রেখেছে।

বুধবার (১৩  জানুয়ারি) দুপুর আনুমানিক ১টা থেকে লেনটি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

দেশের ব্যস্ততম এই মহাসড়কে অবস্থিত এই সেতুটির একটি লেন বন্ধ থাকায় মহাসড়কে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। মহাসড়কের তুরাগ এলাকা থেকে আমিনবাজার পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার যানজটের সৃষ্টি হয়েছে, এতে ভোগান্তিতে পড়েছেন চলাচলরত সাধারন মানুষ।

বিষয়টি বুধবার রাতে আজকের বাংলাদেশ পোস্ট’কে নিশ্চিত করেছেন ঢাকা সড়ক ও জনপথ বিভাগের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মারুফ হাসান।

তিনি বলেন, ‘ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের সাভার থেকে ঢাকাগামী পথে সেতুটির পুরাতন অংশে, যেটি মূলত ৭০ এর দশকে নির্মিত হয়েছে, সেই অংশের গার্ডারে বেশকিছু ফাটল দেখা দিয়েছে, যেটি যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ। তাই প্রাথমিকভাবে আমরা আমাদের প্রকৌশলী ও পরামর্শকদের নিয়ে সেতুটি পরিদর্শন শেষে ঝুঁকিপূর্ণ অংশের লেনটি বন্ধ রাখার পরামর্শ দিয়ে নোটিশ টাঙ্গিয়ে দেওয়া হয়েছে। ধারণা করছি সংস্কারের মাধ্যমে অতি দ্রুত সেতুটির ওই লেনটি পুনরায় সচল করা সম্ভব হবে, তবে আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) আরও বিশদভাবে ফাটলগুলো পর্যালোচনা করে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ধরণের কোন সেতু নির্মানের পর তার আয়ুষ্কাল ৫০ বছর ধরা হয়। সেক্ষেত্রে ৭০ এর দশকে নির্মিত এই সেতুটির ওই লেনের আয়ুষ্কালও শেষের দিকে। আমরা এমনিতেও সেতুটি পূর্ননির্মানের উদ্যোগ নিয়েছিলাম, তবে কিছু জটিলতার কারনে কাজটি এখনো শুরু করা যায়নি।’

ঢাকা জেলা পুলিশের (উত্তর) পরিদর্শক (প্রশাসন) মোঃ আব্দুস সালাম জানান, ‘ফাটলটি সম্পর্কে আগেই জানতে পেরেছিলো সড়ক ও জনপথ বিভাগ। বুধবার দুপুর আনুমানিক ১টা থেকে সেতুটির একটি লেন বন্ধ রেখে অপর লেনটি দিয়ে যানবাহন চলাচল করানো হচ্ছে। ঝুঁকি এড়াতে ও যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে ঘটনাস্থলে সার্বক্ষনিক পরিদর্শক পদমর্যাদার একজন কর্মকর্তাসহ পর্যাপ্ত ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন রয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *