সাভারের গেণ্ডা বাজারে প্রতিদিন চাঁদাবাজি ৪০ হাজার টাকা!

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাভারে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের গেণ্ডা বাসস্ট্যান্ডের পাশে উচ্ছেদকৃত সড়ক ও জনপদ (সওজ) জমিতে ফের বাজার বসিয়ে প্রতিদিন কথিত ‘ভাড়া’ তুলছে একটি চক্র। দিনশেষে ভাড়া নামে সেই চাঁদার টাকার পরিমাণ ৪০ হাজার টাকা। স্থানীয়রা জানান, সওজ কর্তৃপক্ষ ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক আটলেনে উন্নীত করার লক্ষ্যে বিজয় দিবসের আগে রাস্তার পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে।

অভিযানে কয়েক’শ বহুতল ভবনও ভাঙা পড়ে। অভিযানের অংশ হিসেবে সাভারের গেণ্ডা বাসস্ট্যান্ডের পূর্বপাশে বসানো অবৈধ কাচাবাজারও উচ্ছেদ করা হয়। কিন্তু উচ্ছেদের কয়েকদিন পরই জনৈক লিটন ভান্ডারী, ইকবাল, সবুজসহ কয়েকজন মিলে ওইস্থানে ফের বাজার বসিয়েছে। এরমধ্যে নতুন করে টিন দিয়ে ১৫টি ঘর নির্মাণ করে মুদি দোকান ও মুরগির দোকান ভাড়া দেয়া হয়েছে। এছাড়া বসানো হয়েছে আরো অর্ধশত অস্থায়ী দোকান। সেখান থেকে প্রতিদিন ‘ভাড়া তোলা হচ্ছে ৪০ হাজার টাকা’। ওই টাকা বিকেলে চারজনের মধ্যে ভাগ হচ্ছে বলে জানা গেছে। টাকা আদায়ের দায়িত্বে রয়েছে জনৈক আলী নামে এক ব্যক্তি। চাঁদার টাকা নিশ্চিত করতে ওই এলাকায় সারাক্ষণ মহড়া দেয় একদল চিহ্নিত বখাটে।

এদিকে পুলিশ ও প্রশাসনের নাকের ডগায় সওজ’র জমিতে অবৈধভাবে বাজার বসিয়ে চাঁদাবাজির ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গেণ্ডার বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীরা। তাদের অভিযোগ, রাস্তার পাশে বাজার বসানোর কারনে এলাকার পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে। বিশেষ করে মুরগির দোকানগুলোর কারনে দুর্গন্ধে ওই এলাকায় টেকা দায় হয়ে পড়েছে। রাস্তা ঘেঁসে বাজার বসানোর কারনে সৃষ্টি হচ্ছে যানজট ও ভোগান্তি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *