রমজানে নিত্যপণ্যের দাম বাড়ালে কঠোর শাস্তি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ রমজান মাস আসতে এখনও বাকি মাসখানেক। এরইমধ্যে চড়া হতে শুরু করেছে কিছু নিত্যপণ্যের দাম। তাই ভোক্তাদের কপালে এখনই চিন্তার ভাঁজ। তবে কঠোর অবস্থানে সরকার।

এবার রমজানে কোনো পণ্যের দাম বাড়ার বিন্দুমাত্র সুযোগ নেই বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। এরপরেও কেউ দাম বাড়ালে কঠোর শাস্তির সুপারিশ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) বিকেলে সংসদ সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ সুপারিশ করা হয়।

কমিটির সভাপতি বিরোধীদল জাতীয় পার্টির প্রধান হুইপ মো. তাজুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন, মো. ছানোয়ার হোসেন, লায়লা আরজুমান বানু ও মোহাম্মদ হাছান ইমাম খাঁন অংশ নেন।

বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি তাজুল ইসলাম চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, এবার যে পরিমাণ নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস মজুদ রয়েছে তাতে দাম বাড়ানোর বিন্দুমাত্র সুযোগ নেই। আমরা আগে থেকেই ছোলা ও মশুর ডাল আমদানি করে রাখছি। এবার কেউ দাম বাড়ালে কঠোর শাস্তি। সেই শাস্তি হতে পারে তার লাইসেন্স বাতিল। আমরা এবার বিষয়টি সিরিয়াসলি নিয়েছি। কোনোভাবেই দাম বাড়তে দেওয়া হবে না।

তিনি বলেন, যে পরিমাণ মজুদ আছে তাতে এই রমজান তো যাবেই, আগামী বছরেও শেষ হবে না। কাজেই দাম বাড়ার কোনো সুযোগ নেই।

বৈঠক সূত্রে জানা যায়, রমজান উপলক্ষে টিসিবির পরিকল্পনা অনুযায়ী চিনি ২ হাজার মেট্রিকটন, মসুর ডাল ১ হাজার ৫০০ মে. টন, তেল ১ হাজার মে. টন বা ১০ লাখ ৮৬ হাজার ৯৫৭ লিটার, ছোলা ১ হাজার ৯৫৫ মে. টন এবং খেজুর ১০০ মে. টন কেনার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। চাহিদার চেয়ে বেশি আমদানি করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়া থেকে আমদানি করা ছোলা ও মসুর ডাল অতিদ্রুত চট্টগাম বন্দরে এসে পৌঁছাবে। তা খালাস করে টিসিবির সব আঞ্চলিক কার্যালয়গুলোতে গুদামজাত করা হবে। আসন্ন রমজান উপলক্ষে সব বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে ১৮৭টি ট্রাকের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য ভোক্তাসাধারণের কাছে বিক্রির পরিকল্পনা রয়েছে। ডিলারের মাধ্যমে ভোক্তাদের কাছে সাশ্রয়ী মূল্যে টিসিবির পণ্য সরবরাহ করা হবে।

বৈঠকে আরো উল্লেখ করা হয়, রমজান মাসে পণ্যসামগ্রীর মূল্য যেন স্থিতিশীল থাকে সে ব্যাপারে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদারের জন্য নিয়মিত বাজার তদারকি কার্যক্রম জোরদার করবে।

বৈঠকে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, টিসিবির চেয়ারম্যানসহ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *