নোয়াখালীতে নারীকে বিবস্ত্র করে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের বড়খাল এর পাশে এক গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে শ্লীলতাহানীর ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে দেখা যায়, দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ার, বাদল, কালাম ও আবদুর রহিমসহ পাঁচ জন যুবক ওই নারীকে বিবস্ত্র করে। এ ঘটনায় রবিবার বিকালে আবদুর রহিম (২২) নামে এক যুবককে আটক করেছে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ।

উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নের ৯নম্বর ওয়ার্ডের খালপাড় এলাকার নূর ইসলাম মিয়ার বাড়িতে ২০/২৫ দিন আগে এ ঘটনা ঘটে।

রবিবার দুপুরে গৃহবধূকে নির্যাতনের ওই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে।

ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, ওই গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে তার মুখমন্ডলে লাথি দেয় এবং বেধড়ক মারধর করার দৃশ্য ধারণ করে ফেসবুকে ভাইরাল করে। ভিডিও ধারণের সময় গৃহবধূ বখাটেদের বহুবার পায়ে ধরে এবং বাবা-বাবা বলে ডাকলেও, ভিডিওধারণ বন্ধ রাখেনি।

বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর তা নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আলমগীর হোসেনের নজরে আসলে এ বিষয়ে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসিকে নির্দেশ প্রদান করেন।

পুলিশ সুপার জানান, পুলিশ আজ রবিবার নির্যাতিতাকে তার বাবার বাড়ি থেকে উদ্ধার করেছে। নির্যাতিতা পুলিশকে জানিয়েছে, আজ থেকে ২০/২৫ দিন আগে এই ভিডিও চিত্র ধারণ করা হয়। তবে সঠিক তারিখ সে বলতে পারেনি। এ ছাড়া ভিডিওতে দৃশ্যমান বখাটেদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের ৫টি ইউনিট অভিযান চালিয়ে যাচ্ছে।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি হারুন অর রশিদ চৌধুরী বলেন, তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনার সাথে জড়িত আবদুর রহিমকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া বাকীদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তিনি রাতে মেয়েটির বক্তব্য নেবেন বলে জানান।

এদিকে লোমহর্ষক এ ঘটনার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হবার পর সারাদেশের মানুষ প্রতিবাদ ও চিহ্নিত দেলোয়ার বাহিনীর প্রধান দেলোয়ারসহ সকল অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *