আশুলিয়ায় আন্ত:জেলা ডাকাত দলের আট সদস্য আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাভারের আশুলিয়ায় একটি দুর যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে আন্তঃজেলা ডাকাত আট সক্রিয় সদস্যকে আটক করেছে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

গত রবিবার গভীর রাতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের নয়ারহাট এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত বেশ কিছু দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

পুলিশ জানায়, গত ৩০ মার্চ আশুলিয়ায় এস আলম পরিবহনের একটি দূর পাল্লার যাত্রীবাহী বাসে ডাকাতির সূত্র ধরে পুলিশ এক ডাকাতকে আটক করে। পরে তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী রবিবার গভীর রাতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকায় ঝিনাইদহগামী পূর্বাশা পরিবহণের একটি চলন্ত বাসে ডাকাতির প্রস্তুতি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে আন্তঃজেলা ডাকাত সদস্যদের আটক করে।
পুলিশ আরও জানায়, এর মধ্যে ডাকাত চক্রের ২ সদস্য ঝিনাইদহের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা পূর্বাশা পরিবহণের বাসটিতে পূর্বে থেকেই টিকেট কেটে যাত্রীবেশী বাসের ভিতরে অবস্থান করছিলো। পরে বাসটি নরসিংদী পৌছলে চক্রের আরোও দুই সদস্য বাসে যাত্রীবেশে ওঠে। এরপর সর্বশেষ সাভার থেকে ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য যাত্রীবেশে বাসটিতে উঠে আশুলিয়ার নয়ারহাট এলাকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিতে থাকে।

আটককৃতরা হলো, নারায়নগঞ্জ জেলার ইমান আলীর ছেলে শাহিনুর রহমান (৪৫), রংপুর জেলার মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে তাজুল ইসলাম (৪৭), নাটোর জেলার মৃত আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে এছার উদ্দিন, নড়াইল জেলার লিয়াকত মোল্লার ছেলে হাছানুর রহমান (৩৫), ফরিদপুর জেলার মৃত সোনা উল্লাহ শেখের ছেলে কামরুল হাসান (৩৫), গাইবান্ধা জেলার মোঃ খলিলের ছেলে শরিফুল ইসলাম (২৮), জামালপুর জেলার ফজলুল হকের ছেলে খোরশেদ আলম (৩৫) ও নারায়নগঞ্জ জেলার নাছির উদ্দিনের ছেলে হুমায়ন (২৭)।
এবিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রিজাউল হক দিপু জানান, আটক ডাকাতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর রিমান্ড চেয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। এদের বিরুদ্ধে দেশের বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *