আশুলিয়ার কুরগাঁয়ে ৩ নারীকে ধর্ষণ, ভন্ডপীর গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আশুলিয়া থানাধীন কুড়গাঁও এলাকায় একই পরিবারের ৩ নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ভন্ড পীরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

এবিষয়ে ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে ভন্ড পীরের বিরুদ্ধে মামলা করলে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলার এজাহার সূত্রে জানাগেছে, প্রায় ১০ বছর আগে এক প্রবাসীর স্ত্রী এ ভন্ড পীরের মুরীদ হন। ভন্ড পীর মনির হোসেন তাকে ধর্মের নানা অপব্যাখ্যা দিয়ে প্রতিনিয়ত শারীরিক সম্পর্ক করে আসছিলো। একপর্যায়ে ভন্ড পীরের নজর পরে ওই সীমার ছোট বোনের উপরও। বড় বোনকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে একই কায়দায় ছোট বোনকে মুরীদ করে ভন্ড পীর। এরপর তার সঙ্গেও নিয়মিত মেলামেশা করে আসছিলো। সর্বশেষ বড় বোন সীমার ১৩ বছরের কিশোরী মেয়েও রেহাই পায়নি এ ভন্ড পীরের কবল থেকে। সীমাকে নানা কৌশলে বুঝিয়ে মেয়ের সঙ্গেও একই কায়দায় শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে। ভন্ড পীরের আস্তানা আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকার নিজ ৫ তলা বাড়ির ৫ তলাতে। সে নিজ বাড়িতেই দীর্ঘদিন ধরে আস্তানা তৈরি করে এমন ভয়ংকর অপকর্ম চালিয়ে আসছিলো।

একই পরিবারের মা, মেয়ে ও বোনসহ ৩ নারী ধর্ষণের অভিযোগে এই ভন্ড পীরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

ভুক্তভোগী নারীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মাদ রিজাউল হক দিপু জানান, নানা কৌশলে ভন্ড পীর তার নিজ বাড়ীতে একাধিক নারীকে ধর্ষণের ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *