আশুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন মাদবরের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

নিজস্ব প্রতিবেদক: সাভার উপজেলার আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিন মাদবরের কাছে পাওনা টাকা চাওয়ায় পাওনাদারকে মারধর ও তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রায় সাত কোটি টাকার মালামাল লুটের অভিযোগে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন আহম্মেদ শাওন বাদী হয়ে শাহাবুদ্দিন মাদবর (৫০), মাহাবুবা সুলতানা রিতা (৩৬), মিজানুর রহমান (৪৮), বাবু জাহিদ (২৫), গফুর মিয়া (৫০), মোস্তফা (৪৫) কে আসামী করে ঢাকার চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি মামলা (সি.আর নং-৪৫৫/২০২০) দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, ভূক্তভোগী ব্যবসায়ী সালাউদ্দিন আহম্মেদ শাওনের মালিকানাধীন মেসার্স মেঘনা ষ্ট্রীল এজেন্সী থেকে রড, সিমেন্ট, ষ্ট্রীলসহ প্রায় ৩৫ লক্ষ টাকার নির্মাণ সমগ্রী বাকিতে ক্রয় করেন শাহাবুদ্দিন মাদবর। বেশ কিছুদিন টাকা পরিশোধ না করায় পাওনা টাকা চাইলে চাইতে গেলে ওই ব্যবাসায়ী শাওনকে আশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদ কার্যলয়ে আটকে রেখে মারধর করে তাড়িয়ে দেয় চেয়ারম্যান ও তার লোকজন। এবং ভবিষ্যতে পাওনা টাকা পুনরায় দাবী করলে তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হয়।

মামলার বাদী সালাউদ্দিন আহম্মেদ শাওন জানান, চেয়ারম্যান শাহাবুদ্দিনের অপকর্মের ভিডিও ফুটেজ তিনি আদালতে দাখিল করেছেন। এছাড়া তার তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক তৈরি করে তাকে বিভিন্ন ভাবে ক্ষতি করে আসছেন মামলার আসামীরা।তার বিরুদ্ধে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাকে জেল হাজতে পাঠিয়ে শাহাবুদ্দিন মাদবর ও তার বাহিনী আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে প্রায় সাত কোটি টাকার মালামাল লুট করেছে বলে তিনি দাবী করেন।

এ বিষয়ে শাহাবুদ্দিন মাদবরের সাথে কথা বলতে মোবাইলে একাধিকবার চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *